1. shahjahanbiswas74@gmail.com : Shahjahan Biswas : Shahjahan Biswas
  2. ssexpressit@gmail.com : sonarbanglanews :
মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:১৯ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
সিঙ্গাইর ও হরিরামপুর উপজেলায় প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ মানিকগঞ্জে মটরসাইকেলের ধাক্কায় প্রাণ গেল এলজিইডির প্রকৌশলীর মানিকগঞ্জ- ঝিটকা  আঞ্চলিক সড়কে ট্রাক বিকল, যান চলাচল বন্ধ, ভোগান্তিতে স্থানীয়রা গরমের বিপদ হিট স্ট্রোক, ঝুঁকি এড়াতে করণীয় তীব্র তাপদাহে পুড়ছে দেশ:পানির জন্য হাহাকার, শঙ্কা কৃষিতে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে মানিকগঞ্জে ৩ লাখ টাকার হেরোইনসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার ঢাকা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি রাশেদ, সম্পাদক জাহিদ উপজেলা ভোটের প্রথম ধাপে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন আজ দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থী ২০৫৫

হাজারী গুড়ের ঐতিহ্য ধরে রাখতে,গাছিদের নিয়ে হবে হাজাড়ী পল্লী

  • সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ১৫ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ১০৩ বার পড়েছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক: মানিকগঞ্জের বিখ্যাত হাজাড়ী গুড় উৎপাদনের সাথে জড়িত গাছিদের নিয়ে হাজাড়ী পল্লী গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছেন মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক রেহেনা আকতার। সোমবার সকালে মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার বাল্লা ইউনিয়নের ঝিটকা গাছি পাড়ায় “ক্লিন মানিকগঞ্জ, গ্রীণ মানিকগঞ্জ” প্রকল্পের আওতায় হাজারী গুড় উৎপাদনে সম্পৃক্ত গাছিদের সাথে মতবিনিময় সভায় এ ঘোষণা দেন জেলা প্রশাসক।

সভায় মিজান গাছি বলেন, “গাছ কমে যাওয়ায় গুড়ও কম উৎপাদন কমে গেছে। সরকারি উদ্যোগে গাছ রোপণ, জ্বালানির ব্যবস্থায় সহায়তা চাই”।

সভায় গাছিদের নানা দাবি তুলে হাজাড়ী পরিবারের সন্তান শফিকুল ইসলাম শামিম হাজাড়ী বলেন,” এক কেজি হাজাড়ী করতে গাছিদের অনেক পরিশ্রম করতে হয়। তাদের জ্বালানি সংকট রয়েছে। রসও কম হয় এখন, আগের চেয়ে গাছ কমে গেছে। স্বল্প সুদের ঋণ দরকার”।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে  জেলা প্রশাসক রেহেনা আকতার বলেন , ঐতিহ্যবাহী হাজারী গুড়ের গুণগতমান বজায় রাখা এবং পণ্যটি টিকিয়ে রাখতে পাঁচ লাখ খেজুর গাছ রোপণ করা হবে।  চাষিদের প্রশিক্ষণসহ নানা উদ্যোগ নেওয়া হবে । এখানে হাজাড়ী পল্লী গড়ে তোলা হবে। ভেজাল রোধে উপজেলা প্রশাসন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবে।

হরিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাহরিয়ার রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) শুক্লা সরকার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাপসী রাবেয়া, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ নুর এ আলম, সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দসহ অর্ধ শতাধিক গাছি উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, লোকজ গান আর হাজারী গুড়, মানিকগঞ্জের প্রাণের সুর। হাজারী গুড়ের ঐতিহ্য বহন করায় এভাবেই মানিকগঞ্জ জেলাকে ব্র্যান্ডিং করা হয়েছে।

খবরটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন :