1. shahjahanbiswas74@gmail.com : Shahjahan Biswas : Shahjahan Biswas
  2. ssexpressit@gmail.com : sonarbanglanews :
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৫৮ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
অতিরিক্ত গরমে এড়িয়ে চলবেন যে সব খাবার ? প্রধানমন্ত্রী আজ থাইল্যান্ড যাচ্ছেন সিংগাইরে আনন্দটিভি প্রতিনিধিসহ দুজনের নামে চাঁদাবাজির মামলা সিংগাইর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী ৩ জন হরিরামপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট যুদ্ধে চেয়ারম্যান পদে ৫ প্রতিদ্বন্দ্বী সিঙ্গাইর ও হরিরামপুর উপজেলায় প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ মানিকগঞ্জে মটরসাইকেলের ধাক্কায় প্রাণ গেল এলজিইডির প্রকৌশলীর মানিকগঞ্জ- ঝিটকা  আঞ্চলিক সড়কে ট্রাক বিকল, যান চলাচল বন্ধ, ভোগান্তিতে স্থানীয়রা গরমের বিপদ হিট স্ট্রোক, ঝুঁকি এড়াতে করণীয় তীব্র তাপদাহে পুড়ছে দেশ:পানির জন্য হাহাকার, শঙ্কা কৃষিতে

খুলনাকে হারিয়ে ৪ রানে কুমিল্লার রোমাঞ্চকর জয়

  • সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ১৭১ বার পড়েছেন

অনলাইন ডেস্ক: তীরে গিয়ে তরী ডুবল খুলনার। অধিনায়ক ব্যাটিংয়ে থেকেও শেষ বলে ছক্কা হাঁকাতে ব্যর্থ। যে কারণে লড়াই করেও শেষপর্যন্ত হারে খুলনা।

শনিবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে ৯.৫ ওভারে ৬৫ রানের জুটি গড়ে সাজঘরে ফেরেন জাতীয় দলের তারকা ওপেনার লিটন কুমার দাস। তিনি ৪২ বলে ৯টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৫০ রান করে ফেরেন।

এরপর জনসন চার্লসের সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেটে ৩৮ বলে ৬০ রানের পার্টনারশিপ গড়েন কুমিল্লার পাকিস্তানি ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান। তিনি উইকেটের একপ্রান্ত আগলে রাখলেও অন্যপ্রান্তে ২২ বলে ৫টি ছক্কার সাহায্যে ৩৯ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে ফেরেন চার্লস।

এরপর ইনিংসের শেষদিকে খুশদিল শাহকে সঙ্গে নিয়ে ২৫ বলে ৪০ রানের মারকাটিং জুটি গড়েন রিজওয়ান। তিনি ইনিংস ওপেন করতে নেমে ৪৭ বলে চারটি বাউন্ডারি আর এক ছক্কার সাহায্যে ৫৪ রানে অপরাজিত থাকেন। লিটন-রিজওয়ানের ফিফটিতে ভর করে ২ উইকেটে ১৬৫ রান করে কুমিল্লা।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে ইনিংসের শুরুতেই আউট হন খুলনার তারকা ক্রিকেটার তামিম ইকবাল। তিনি ১০ বলে ১১ রানে ফেরেন। এরপর শাই হোপের সঙ্গে ৪০ বলে ৪৯ রানের জুটি গড়ে ফেরেন আয়ারল্যান্ডের তারকা ক্রিকেটার অ্যান্ড্রু বালবার্নি। তিনি ফেরেন ৩১ বলে ৩৮ রানে। তৃতীয় উইকেটে শাই হোপের সঙ্গে ২১ বলে ৪৩ রানের জুটি গড়ে ফেরেন মাহমুদুল হাসান জয়। তিনি ১৩ বলে দুই চার আর দুই ছক্কার ২৬ রানের টর্নেডো ইনিংস খেলে আউট হন।

জয়ের বিদায়ের পর আউট হন আজম খান ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পতনের কারণে জয় থেকে অনেক দূরে সরে যায় খুলনা।

শেষ ১২ বলে খুলনার জয়ে প্রয়োজন ছিল ২৫ রান। ৩৩ ও ১৮ রানে শাই হোপ আর অধিনায়ক ইয়াসির আলী ব্যাটিংয়ে থাকায় জয়ের স্বপ্ন দেখছিল খুলনা। কিন্তু ১৯তম ওভারে পাকিস্তানের পেসার নাসিম শাহের প্রথম বলেই বোল্ড শাই হোপ। তার বিদায়ে কঠিন হয়ে যায় খুলনার ম্যাচ। সেই ওভারে এক উইকেট হারিয়ে মাত্র ৮ রান তুলতে পারে ইয়াসির আলীরা।

জয়ের জন্য শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ১৭ রান। মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের করা ওভারের প্রথম বল ডট, দ্বিতীয় বলে সিঙ্গেল নিয়ে প্রান্ত বদল করেন পাকিস্তানি পেসার ওয়াহাব রিয়াজ। তৃতীয় ও চতুর্থ বলে পরপর দুটি বাউন্ডারি হাঁকিয়ে জয়ের স্বপ্ন ফের জাগিয়ে তুলেন ইয়াসির আলী।

জয়ের জন্য শেষ ২ বলে প্রয়োজন ছিল ৮ রান। দুটি বাউন্ডারি হাঁকালেই হতো; কিন্তু ওভারের পঞ্চম বলে ডাবল রান নেন ইয়াসির। শেষ বলে জয় নিশ্চিত করতে হলে তাকে ছক্কা হাঁকাতেই হতো। এ অবস্থায় রাউন্ড দ্য উইকেটে মোসাদ্দেক বল করেন অফস্টাম্পের বাইরে প্রায় ইয়র্কার লেংথে ফুল টস। ইয়াসির নিতে পারেন স্রেফ ১ রান। ৪ রানের জয়ের উল্লাসে মাতে কুমিল্লা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স: ২০ ওভারে ১৬৫/২ রান (রিজওয়ান ৫৩*, লিটন ৫০, চার্লস ৩৯, খুশদিল ১৩*)।

খুলনা টাইগার্স: ২০ ওভারে ১৬১/৬ রান (বালবার্নি ৩৮, শাই হোপ ৩৩, ইয়াসির ৩০*, মাহমুদুল হাসান ২৬, তামিম ১১; নাসিম ২/৩০)।

ফল: কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ৪ রানে জয়ী।

খবরটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন :